বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও স্বাস্থ্য সেবা কর্মসূচি

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন ২০২০ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও স্বাস্থ্য সেবা কর্মসূচি আয়োজন করে। ১৭ মার্চ ২০২০ ঢাকার মিরপুরে ইউনিসেফ প্রজেক্ট ‘সুরভি স্কুল’-এর সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে উক্ত অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সুরভি স্কুলের সকল শিক্ষার্থীদের ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং করা হয়। বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীর নিকট স্বাস্থ্য উপকরণ ও খাবার বিতরণ করা হয়।
বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও স্বাস্থ্য সেবা কর্মসূচি অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক এস এম আলী আজম। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সুরভি স্কুলের শিক্ষিকা রুপালী জাহান, সুমাইয়া ইসলাম, সংগঠনের নির্বাচিত সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান রাফি, সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রত্যয় বিশ্বাস, সহ সভাপতি মো. তরিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক বৃষ্টি ভদ্র সিমন্তী। অনুষ্ঠানের আহবায়ক ছিলেন সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক নিলয় পারভেজ।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফিফা তাবাসসুম, দপ্তর সম্পাদক লামিয়া আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ মো. মিজানুর রহমান, প্রচার সম্পাদক আবু জাহের রানা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আদিবা আজম মাটি, সহ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক সৌগত মুনির বর্ণ, সহ-সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক সারোয়ার রহমান দীপ্ত, সহ-অনুষ্ঠান সম্পাদক সিফায়েত সাকিব, সহ রক্তদান সম্পাদক ইসতিয়াক আহমেদ ফারদিন, কার্যনির্বাহী সদস্য নাফিস রাইয়ান ওমি ও রজণীগান্ধা সরকার।
বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় দেশাত্মবোধক গানে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে লাবনী আক্তার, রামিম ও তানজিনা আক্তার। কবিতা আবৃত্তিতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে তানজিনা আক্তার, লাবনী আক্তার ও সাকিবুল হাসান শাওন। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে সজীব, রত্মা আক্তার ও মো. ইমরান। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে সজীব, আবদুল্লাহ শিকদার ও সাকিবুল হাসান। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার ও সার্টিফিকেট তুলে দেন বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস এম আলী আজম। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের জীবনে সফল হতে বিভিন্ন দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন এবং সেই সাথে সকলকে করোনা ভাইরাসসহ স্বাস্থ্যসংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করেন।

গোলাপগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে আ’লীগের রালি ও পুষ্পস্তবক অর্পণ

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ গোলাপগঞ্জে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে গোলাপগঞ্জ উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আকবর আলী ফখরের নেতৃত্বে র্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় র্যালিটি শুরু হয়ে পৌর এলাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে গিয়ে আলোচনার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়।

এসময় উপস্হিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিম, আব্দুল জব্বার বাদাই, আবুল লেইছ, ইজলাল আহমদ, কবির আহমদ, চান্দ আলি, আব্দুল জলিল, নিজাম উদ্দিন, মইন উদ্দিন, বাহার উদ্দিন, তুরু মিয়া, জুবের আহ্মদ, শরিফ উদ্দিন, শাহজাহান আহমদ, বাহার আহমদ, আজমল হুসেন,ফখরুল ইসলাম সাহেদ, মারজান আহমদ রিপন, সাইদুর রহমান দুলাল, যুবলীগ নেতা আমির হুসেন রাহি, শাহ ইমরান, কামরান হোসেন, আব্দুস শহিদ, তাজুল ইসলাম, রুবেল আহমদ, রাজু আহমদ, তারেক আহমদ প্রমুখ।

এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ মোনাজাতের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

দেশের প্রথম ‘ওয়াইফাই সিটি’ সিলেট

সিলেট প্রতিনিধিঃ দেশের প্রথম ‘ওয়াইফাই সিটি’ হিসেবে যাত্রা শুরু করলো সিলেট। নগরীর ১২৬টি এক্সেস পয়েন্টে ফ্রি ইন্টারনেট সেবা চালুর মধ্য দিয়ে ‘ওয়াইফাই সিটি’ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলো সিলেট। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে সিলেটকে ‘ওয়াইফাই সিটি’ আখ্যা দিয়ে এর ইউজার নেম ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ ও পাসওয়ার্ড হিসেবে জাতীয় স্লোগান ‘জয় বাংলা’ ঘোষণা করেছেন।

‘ওয়াইফাই সিটি’ হিসেবে সিলেটের যাত্রা শুরুর মধ্য দিয়ে সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের আরেকটি নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ হলো বলে মনে করছেন সিলেটের মানুষ।

নির্বাচনের আগে তিনি ‘আলোকিত উন্নত সিলেট’র যে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন, তাতে সিলেটকে একটি স্মার্ট নগরী হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি ছিল। সে লক্ষ্যে পুরো নগরীকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা, ‘ওভারহেড ক্যাবল লাইন’ অপসারণ করে ‘আন্ডারগ্রাউন্ড’ করাসহ বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ এখন দ্রুত এগিয়ে চলছে। এসব উন্নয়ন কাজ শেষ হলে সিলেট পুরোপুরি স্মার্ট সিটিতে রূপান্তর হবে বলে মনে করছেন সিলেটের মানুষ।

সিলেটের যে সকল স্থানে ফ্রি ওয়াইফাই :
চৌকিদেখিতে ১টি, আম্বরখানা পয়েন্টে ৪টি, দরগা গেইটে ২টি, চৌহাট্টায় ৩টি, জিন্দাবাজারে ৪টি, বন্দরবাজার ফুটওভার ব্রিজ এলাকায় ৩টি, হাসান মার্কেট এলাকায় ৫টি, সুরমা ভ্যালি রেস্ট হাউস এলাকায় ২টি, সার্কিট-হাউস জালালাবাদ পার্ক এলাকায় ৩টি, ক্বিন ব্রিজের দুই প্রান্তে ৬টি, রেলওয়ে স্টেশনে ৪টি, বাস টার্মিনালে ৩টি, কদমতলী পয়েন্ট ও সংলগ্ন এলাকায় ৫টি, হুমায়ুন রশীদ চত্বরে ৩টি, আলমপুর পাসপোর্ট অফিস এলাকায় ২টি, বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় এলাকায় ৩টি, সিলেট শিক্ষাবোর্ডে ২টি, উপশহর রোজভিউ পয়েন্টে ২টি, শহাজালাল উপশহর ই-ব্লক ও বি-ব্লকে ১টি করে ২টি, টিলাগড় পয়েন্টে ৩টি, এমসি কলেজ এলাকায় ২টি, শাহী ঈদগাহ এলাকায় ৩টি, কুমারপাড়া এলাকায় ৩টি, কুমারপাড়া সড়কে ২টি, দক্ষিণ বালুচরে ১টি, টিচার্স ট্রেনিং কলেজে ১টি এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে ১টি এক্সেস পয়েন্ট থাকবে।

এছাড়াও সিলেট নগরীর নাইওরপুল পয়েন্টে ২টি, মিরাবাজার সড়কে ১টি, রায়নগর এলাকায় ১টি, সোবহানীঘাট পুলিশ স্টেশন এলাকায় ২টি, ধোপাদিঘীরপাড় বঙ্গবীর ওসমানী শিশু উদ্যানে ১টি, বন্দরবাজার জামে মসজিদ এলাকায় ২টি, নয়াসড়ক পয়েন্ট ও সংলগ্ন এলাকায় ৪টি, কাজীটুলা এলাকায় ২টি, চৌহাট্টা সড়কে ৩টি, হাউজিং এস্টেট সড়কে ১টি, সুবিদবাজারে ১টি, মিরের ময়দানে ১টি, পুলিশ লাইন সড়কে ১টি, রিকাবীবাজার জেলা স্টেডিয়ামে ২টি, মদন মোহন কলেজ এলাকায় ১টি, মির্জাজাঙ্গাল সড়ক এলাকায় ২টি, পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্ট এলাকায় ১টি, খুলিয়াপাড়া এলাকায় ১টি, নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি এলাকায় ১টি, তালতলা হোটেল গুলশান এলাকায় ১টি, কাজিরবাজার সেতু এলাকায় ১টি, কাজিরবাজার সড়কে ২টি, খোজারখলা সিলেট টেকনিক্যাল কলেজ এলাকায় ১টি, বাগবাড়ি ওয়াপদা মহল্লা এলাকায় ১টি, পাঠানটুলায় ১টি, মদিনা মার্কেট পয়েন্টে ২টি, শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গেটে ২টি এবং ওসমানী মেডিকেল কলেজ এলাকায় ১টি এক্সেস পয়েন্ট রয়েছে।

প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, এসব এক্সেস পয়েন্টের প্রতিটিতে একসঙ্গে ৫০০ জন যুক্ত থাকতে পারবেন। এরমধ্যে একসঙ্গে ১০০ জন উচ্চগতির ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। প্রতিটি এক্সেস পয়েন্টের চতুর্দিকে ১০০ মিটার এলাকায় ব্যান্ডউইথ থাকবে ১০ মেগাবাইট/সেকেন্ড।

১৫ দফা দাবিতে ময়মনসিংহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে মানববন্ধন

হাসিব রহমান,ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজকে প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরসহ ১৫ দফা দাবিতে আন্দোলন নেমেছে কলেজটির শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সামনে ঢাকা বাইপাস মহাসড়কে মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি, ২০০৭ সালে ময়মনসিংহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে শিক্ষার্থীদের। এর মধ্যে রয়েছে,আবাসন সংকট, নিজস্ব পরিবহন সংকট,নেই কোন মেডিক্যাল টিম,পাশাপাশি রয়েছে শিক্ষক সংকট।এছাড়াও ময়মনসিংহ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত থাকায় পরীক্ষার ফলাফল দিতে দেরি হয়। ফলে সেশন জটে পড়তে হয় তাদের।এসব সমস্যা সমাধানে কলেজটিকে দ্রুত প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার দাবি শিক্ষার্থীদের।

পরে অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক সমর কান্তি বসাক তাদের দাবি সরকারের কাছে পৌঁছে দেয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করেন।

নেত্রকোনা সমিতির পক্ষ থেকে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন

স্টাফ রিপোর্টারঃ অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আজ সকালে ময়মনসিংহস্হ নেত্রকোনা সমিতির পক্ষ থেকে শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মো. আবদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জহিরুল ইসলাম খান জামালের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ অনুষ্ঠানে সমিতির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন। সৈয়দ সানিয়াত হোসাইন সামী চেয়ারম্যান, নবসেনা ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ,নেএকোনা সমিতির সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুল আজিজ , জ্যোতির্ময় সাহা,সহ সাধারণ সম্পাদক মো. আনিছ উর রহমান খান, নির্বাহী সদস্য মজিবুর রহমান বাচ্চু, কামরুজ্জামান লাক মিয়া,সমিতির সম্মানিত সদস্য মো. আব্দুল জব্বার, মো. হামিদুর রাহমান বাদশা, আশরাফুল আলম ও নারায়ণ চন্দ্র সহ প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন ।

সড়ক দুর্ঘটনা: ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুরসহ আহত ৩

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট অধিবেশনে যাওয়ার পথে গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারসহ তিনজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান, তার বডিগার্ড এসআই আব্দুল বারেক ও গাড়ির চালক হেলাল উদ্দিন। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর সিটি করপোরেশনের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের বডিগার্ড এস আই আব্দুল বারেক জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ সিনেট অধিবেশনে যোগ দিতে বোর্ডবাজারে অবস্থিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছিলেন।

পথে বিভাগীয় কমিশনার খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমানকে বহনকারী গাড়িটি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তা এলাকায় পৌঁছালে সামনে থেকে একটি প্রাইভেটকার হঠাৎ মহাসড়কে উঠে পড়ে। এসময় তাদের গাড়িচালক ওই প্রাইভেটকারকে পাশ কাটাতে গিয়ে তাদের বহনকারী জিপটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়ক দ্বীপের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে বিভাগীয় কমিশনার, তিনি ও গাড়ির চালক আহত হন।

পরে তাদেরকে উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: রফিকুল ইসলাম জানান, বিভাগীয় কমিশনারের মাথা, হাত ও পায়ে আঘাত পেয়েছেন। তার চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে তিনি আশঙ্কামুক্ত।

বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠিত

মোহাম্মদ রেজওয়ান: সামাজিক-সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের ৫১ সদস্যবিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠন করা হয়েছে। ঢাকাস্থ মিরপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন হাইস্কুল ও কলেজ মিলনায়তনে সংগঠনের সাধারণ সভায় এ পরিষদ গঠিত হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সংগঠনের উদ্যোক্তা অধ্যাপক এম আলী আজমকে সভাপতি ও সংগঠক বৃষ্টি ভদ্র সিমন্তীকে সাধারণ সম্পাদক করে ‘বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদ’ এর ২০২০ সালের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠন করা হয়। পরে এ সংসদের উদ্যোগে ক্যান্সার সচেতনতা, ফ্রি ডেন্টাল ক্যাম্প, ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং কাম্পেইন, স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ এবং ‘সমাজকল্যাণ ও নৈতিক শিক্ষার গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার এর আয়োজন করা হয়। সবশেষে অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মানবতার কল্যাণ, সুষ্ঠু বিনোদন ও প্রগতিশীল সমাজ প্রতিষ্ঠার প্রত্যয়ে গঠিত হয়েছে জাতীয় সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদ’। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন, জনসেবা, সুষ্ঠু সাংস্কৃতিক চর্চা, বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সৃষ্টি, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-সহিংসতা নিরসন, কুসংস্কার ও ধর্মান্ধতা দূরীকরণ, পরিবেশ ও স্বাস্থ্য সচেতনতা, শ্রমজীবী মানুষ ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সেবা, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে গঠিত হয়েছে জাতীয় সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদ’।
উল্লেখ্য, গত ২ জানুয়ারি ২০২০ জাতীয় সমাজকল্যাণ দিবস উপলক্ষে অধ্যাপক এম আলী আজম এর আহবানে সংগঠন প্রতিষ্ঠা বিষয়ে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে ২৭ জানুয়ারি ২০২০ বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের ২৯ সদস্যবিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠিত হয়। পরবর্তীতে ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ গঠিত হয় বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য।
বাংলাদেশ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংসদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ ২০২০ নিম্নরূপ: সভাপতি এস এম আলী আজম, নির্বচিত সভাপতি (২০২১) মো. হাবিবুর রহমান রাফি, সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রসেনজীত বিশ্বাস প্রত্যয়, সহ-সভাপতি রুমালি আফরিন, সহ-সভাপতি মো. তারিকুল ইসলাম,
সাধারণ সম্পাদক বৃষ্টি ভদ্র সিমন্তী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ইমন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফিফা তাবাসসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক নিলয় পারভেজ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহীন হোসেন, অর্থ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান, সহ-অর্থ সম্পাদক খাদিজা আক্তার সুমা, সমন্বয়ক এস এম জহিরুল ইসলাম, অনুষ্ঠান সম্পাদক ফাহিম রায়হান, সহ-অনুষ্ঠান সম্পাদক সাফায়েত সাকিব, সহঅনুষ্ঠান সম্পাদক ফারদিনা ফরকান টিপটিপ, প্রচার সম্পাদক মো. আবুল জাহের রানা, সহ প্রচার সম্পাদক রওজাতুল জান্নাত সিডনী, প্রকাশনা সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সহ-প্রকাশনা সম্পাদক মো. শাওন ফরিদ, সাহিত্য সম্পাদক অশোকেশ রায়, সহ-সাহিত্য সম্পাদক কাজী সরোয়ার রহমান দীপ্ত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আদিবা অজম মাটি, সহ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক সৌগত মুনির বর্ণ, ক্রীড়া সম্পাদক মো. কামরুল হাসান, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক মাহবুব রহমান, ভ্রমণ সম্পাদক সাগর আহমেদ রাজন, সহ-ভ্রমণ সম্পাদক এএম পাশা, রক্তদান বিষয়ক সম্পাদক ইসতিয়াক আহমেদ ফারদিন, ব্লাড গ্রুপিং সম্পাদক মো. সাকিব হাসান, ডেন্টাল ক্যাম্প বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান খান, ডায়াবেটিস সচেতনতা বিষয়ক সম্পাদক পার্থ সারথী দাস, টিকাদান বিষয়ক সম্পাদক জান্নাতে রুম্মান নাঈমা, জনস্বাস্থ্য ও পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তুষার, ত্রাণ ও শীতবস্ত্র বিষয়ক সম্পাদক ইনজামামুল হক, বৃক্ষরোপণ ও পরিবেশ সম্পাদক সারাফ ওয়াশিমা সপ্তর্ষি, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফারহানা ইয়াসমিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আরিফুর রহমান সাদনান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আবদুল্লাহ আর মামুন রিশাদ, শিশু ও মহিলা কল্যাণ সম্পাদক উম্মুল খায়ের, প্রবীণ হিতৈষী সম্পাদক মিজানুর রহমান মিরাজ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কামরুল হাসান, আইন বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ রেজওয়ান, শৃঙ্খলা সম্পাদক আশফুকুজ্জামান বাপ্পী, পরিবহন ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন, আপ্যায়ন সম্পাদক মাইনুল ইসলাম রিছান, কার্য নির্বাহী সদস্য মুশফিকুল ফজেল ফাহিম, মো. ইব্রাহিম ফাহিম, রুবেল মিয়া, নাফিন রাইয়ান অমি ও মো. সুমন।

ভোলেন্টস্ রোবস্ প্রাঃ লিমিটেডের যাত্রা শুরু রাজশাহীতে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

নতুনত্ব আর আধুনিকতার সংমিশ্রণে ভোলেন্টস্ রোবস্ প্রাইভেট লিমিটেডের যাত্রা শুরু। বুধবার (০৫.০২.২০) বিকেলে রাজশাহীর অলকার মোড়ে অবস্থিত হাবিব টাওয়ারের দ্বিতীয় তলায় এ ফ্যাশান হাউজের উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ২৩ নং ওর্য়াড কাউন্সিলর মোঃ মাহাতাব হোসেন চৌধুরী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভোলেন্টস্ রোবস্ প্রাইভেট লিমিটেড এর চেয়ারম্যান সুমন মজুমদার, প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রিন্স লোধ, দৈনিক লাখো কন্ঠের সম্পাদক ফরিদ আহেমদ বাঙালি, মডেল অভিনেতা ইন্তু রাতিশ, চলচিত্র অভিনেত্রী আইরিন,

এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন টুডে  জার্নাল টুয়েন্টিফোর ডট কমের বার্তা প্রধান ও রাজশাহী ব্যুরো চীফ ফাহাদ ফরহাদ, শিক্ষক মাসুদ রানা এবং ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকসহ  আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।

উদ্বোধন শেষে বুনন সাহিত্য পরিষদের পক্ষ থেকে ভোলেন্টস্ রোবস্ প্রাঃ লিমিটেড এর চেয়ারম্যান সুমন মজুমদার এর হাতে বই তুলে দেন সম্পাদক জামান আহম্মেদ, হাসান আল মামুন, শারমিন জাহান মৌরি ও কারিম ইসলাম।

সুমন মজুমদার বলেন, এখানে দেশীয় সংস্কৃতির আবহের সাথে নতুনত্ব আর আধুনিকতার মিশেলে ফ্যাশন হাউজ শো রুমে পোশাক সমাহারে মিলবে আপনার পছন্দের পোশাকটি। মেয়েদের শাড়ি,সালোয়ার-কামিজ থেকে শুরু করে ছেলেদের প্যান্ট, পাঞ্জাবী, র্টি-শার্ট এবং ফতুয়া। আরো পাবেন মনোমুগ্ধকর ডিজাইনের ছোঁয়া। এ সময় আমন্ত্রিত অতিথিরা উক্ত প্রতিষ্ঠানের সাফল্য কামনা করেন।

অসুস্থ সাংবাদিক নজরুল ইসলামকে দেখতে বাসায় গেলেন বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান এনডিসি

বিশেষ প্রতিনিধিঃ অসুস্থ সাংবাদিক ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মোঃ নজরুল ইসলামকে দেখতে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় তার বাসভবন যান ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান এনডিসি।

এসময় বিভাগীয় কমিশনার সাংবাদিকের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং কিছু সময় তার পাশে কাটান। বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন । শত ব্যস্ততার মাঝেও বাসায় গিয়ে অসুস্থ্য সাংবাদিককে দেখতে বাসায় আসায় পরিবারের সদস্যরা বিভাগীয় কমিশনারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মোঃ নজরুল ইসলামের গত ১৩ জানুয়ারি ময়মনসিংহের স্বদেশ হাসপাতাল প্রাঃ একটি মেজর অপারেশন হয়। ১৯ জানুয়ারি থেকে বাসায় বেড রেস্ট এবং এন্টিবায়েটিক ওষুধ চলমান। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা অনেকটা ভালো বলে পরিবারিক সূত্র জানায়। পূর্ণ সুস্থ্যতার জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন সাংবাদিকের পরিবার।

রাজশাহীতে বুনন পএিকার মোড়ক উন্মোচন

প্রধান অতিথি.. মোঃ নুরুজ্জামান নুর শুভ (সম্পাদক নিশান),প্রধান আলোচক– ফাহাদ ফরহাদ।(নিউজ এডিটর ও ব্যুরো প্রধান রাজশাহী) টুডে জার্নাল ,সভাপতি –রায়হান হোসেন (উপদেষ্টা বুনন),বিশেষ অতিথি – ফুলনাহার মিষ্টি,সালেহ আহমেদ, নাজিম খান)