আজ বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১:৫৮ অপরাহ্

শিরোনাম

সর্বকালের শীর্ষ আয়ের সিনেমা রেকর্ড ধরে রাখার পর ২০১৯ সালে ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ড গেম’ পিছনে ফেলে দেয় ‘অ্যাভাটার’-কে। কিন্তুই দুই বছরের মধ্যেই আবারও শীর্ষ আয়ের মুকুট ছিনিয়ে নেয় জেমস ক্যামেরনের এই সায়েন্টেফিক সিনেমাটি।

২.৭৮৯৭ বিলিয়ন ডলার আয় করে ১০ বছর শীর্ষ আয়ের রেকর্ড ধরে রাখে ‘অ্যাভাটার’। প্রাথমিক মুক্তিতে সেই রেকর্ড ভাঙতে না পারলেও দ্বিতীয় দফা মিলে বিশ্বব্যাপী ২.৭৯০২ বিলিয়ন ডলার আয় করে এক নম্বরে আসে সুপারহিরো সিনেমাটি।
‘অ্যাভাটার’ ও ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’ ছাড়াও ডিজনির অধীনে যাওয়া ২ বিলিয়ন ক্লাবের ছবি হলো টাইটানিক (২.৪৭), স্টার ওয়ার্স: দ্য ফোর্স অ্যাওয়েকেনস (২.০৬৮) ও অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার (২.০৪৮)

চীনের বাজারে শুক্রবার মুক্তি পেয়ে বাজিমাত করেছে ‘অ্যাভাটার’। প্রথম দিনই ঘরে তুলে নিয়েছে ৩.৫ মিলিয়ন ডলার। সে হিসেবে মোট আয় দাঁড়িয়েছে ২.৭৯২৬ বিলিয়ন ডলার। সপ্তাহ শেষে সেই আয় আরও বড় অঙ্কে দাঁড়াবে বলে আশা করা যায়।

করোনার নিউ নরমালে চীনের পরিস্থিতির নির্দেশক হিসেবে কাজ করছে স্থানীয় বক্স অফিস। শুধু পুরোনো ছবি ‘অ্যাভাটার’ই নয়, আরও কিছু ছবি ভালো ফলাফল করেছে দেশটিতে। এর মধ্যে ব্লকবাস্টার স্ট্যাটাস জিতে নিয়েছে ‘ডিটেকটিভ চায়নাটাউন থ্রি’ ও ‘হাই, মম’। অন্যদিকে উত্তর আমেরিকার বাজারে দর্শকেরা এখনো হলে যেতে ভয় পাচ্ছেন, হলিউডের বড় বাজেটের একের পর এক ছবি শুধু পিছিয়েই যাচ্ছে।

এর আগে ‘অ্যাভাটার’ মুক্তি পায় টুয়েন্টিথ সেঞ্চুরি ফক্সের ব্যানারে। তবে ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠানটি কিনে নেয় ডিজনি। এর মাধ্যমে ওয়াল্ট ডিজনি কোম্পানির অধীনে চলে গেছে শীর্ষ দশ ব্যবসাসফল ছবির আটটি।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top