আজ রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আজ (১৬.০১.২০) বিকেলে জবই বিল জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও সমাজ কল্যাণ সংস্থা’র আয়োজনে সাপাহার উপজেলার ঐতিহ্যবাহী জবই বিলের স্মৃতিস্তম্ভে পরিযায়ী পাখি সংরক্ষণে এক আলোচনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সহযোগিতায় ছিলেন বন্যপ্রাণি অপরাধ দমন ইউনিট এবং সাপাহার উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব কল্যাণ চৌধুরীর সভাপতিত্বে উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বন অধিদপ্তরের অপরাধ দমন ইউনিটের পরিচালক জনাব, এ.এস.এম জহির আকন্দ। প্রধান বক্তা: জনাব মোঃ শাহ্জাহান হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সাপাহার। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বি.বি.সি.এফ এর সভাপতি ড. এস এম ইকবাল।

জবই বিল জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও সমাজ কল্যাণ সংস্থা’র সভাপতি জনাব মোঃ সোহানুর রহমান সবুজ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ আব্দুল হাই, আইহাই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাদেকুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক সালেকুর রহমান, টুডে জার্নাল টুয়েন্টিফোর ডট কমের নিউজ এডিটর ও রাজশাহী ব্যুরো প্রধান জনাব ফাহাদ ফরহাদ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অত্র সংস্থার এক ঝাঁক তরুন স্বেচ্ছাসেবী, মৎস্যজীবী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ আরও অনেকেই।

সভায় এ.এস.এম.জহির আকন্দ বলেন “জবই বিল অপার সম্ভাবনাময়ী একটি বিল। এই মুল্যবান সম্পদটি আপনাদের। এর সুফল কুফল আপনারাই ভোগ করবেন। সুতরাং এই বিলটিকে ধরে রাখা বা সংরক্ষণ করার দায়িত্বও আপনাদের। পাখি সংরক্ষণে এবং বিলের সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য বিলের চারপাশে বটবৃক্ষসহ কিছু গাছ লাগানোর পরামর্শও দেন তিনি।”

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন “আজকের এই গুটি কয়েক তরুন যারা পরিবেশ রক্ষার্থে, পাখি রক্ষার্থে নিঃস্বার্থভাবে এগিয়ে এসেছে তাদের জন্য আমার উষ্ম অভিনন্দন। তাদের এই মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। সময় সুযোগ পেলেই আমি তাদের ডাকে ছুটে আসি। তিনি সংগঠনটির পাশে আছেন এবং থাকবেন বলেও আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। বিলের পাখি সংরক্ষণে আইনের বাস্তব প্রয়োগ ঘটানোর কথা বেশ জোরালো ভাবেই জানান তিনি।” শুধু তাই নয় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কঠোরতা ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কমিটির সদস্যদের জোরালো নজর দারিত্বে বিল এলাকায় যে কোন ধরনের পাখি শিকার বন্ধ রয়েছে যার ফলশ্রুতিতে র্বতমানে দেশ বিদেশ হতে হরেক রকম পাখির আগমনে পুরো বিল এলাকা পাখির কলতানে প্রতিনিয়ত মুখরতি হয়ে উঠছে।

জবই বিলে পাখি সংরক্ষণে অবদান রাখার জন্য খাদ্য মন্ত্রী বাবু সাধন চন্দ্র মজুমদার ও উপজেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান  এবং বিলটিকে  পর্যটন ও জীববৈচিত্র্য সমৃদ্ধ বিল হিসাবে গড়ে তুলতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন সোহানুর রহমান সবুজ।

বি: দ্র: অনুষ্ঠান শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব কল্যাণ চৌধুরী’র হাতে সংস্থার পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top