আজ সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০১:২২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বছর শেষে লাগাতার আন্দোলন শুরু করেছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল। যেখানে যা কিছু কর্মসূচি, তার মূল কেন্দ্রেই রয়েছে এই আইনের বিরোধী সুর।

এদিকে, শুক্রবার রাজ্যের একটি অনুষ্ঠানে নতুন বিতর্কিত বিল নিয়ে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি।

মমতা বলেন, এ রাজ্যের ক্ষমতায় আছি আমরা।

মনে রাখবেন, এখানে কোনো ডিটেনশন ক্যাম্প হবে না। মরে যাব, তবু ডিটেনশন ক্যাম্প করতে দেব না। আসামে ডিটেনশন ক্যাম্প হয়েছিল।

কারণ বিজেপি ছিল সরকারে। ”

নতুন আইন নিয়ে তিনি আরও বলেন, নতুন আইন কী বলছে, জেনে রাখুন। আপনি ছিলেন ভারতবাসী, হয়ে যাবেন বিদেশি। তারপর আবার আপনাকে নতুন করে নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে হবে। ওরা ওদের ইচ্ছেমত কাউকে নাগরিকত্ব দেবে, কাউকে দেবে না।

মমতা বলেন, রেশন কার্ড আছে, ভোটার কার্ড আছে। সবাই নাগরিক। ডেমোক্র্যাসি মানে সবাই নাগরিক, রাজা বলে কেউ নেই। ”

বিজেপির উদ্দেশে মমতা বলেন, আমাকে আইন বেশি বুঝিয়ে লাভ নেই। আমি সাতবারের সাংসদ। বহু মন্ত্রণালয় সামলেছি। আইন, সংবিধান সব আমিও জানি। যখন ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (এনপিআর) করবে বলে জানিয়েছিল, তখন ভেবেছিলাম সাধারণ শুমারি হবে। কিন্তু তারপর দেখলাম যে আইনটাই পাল্টে দিচ্ছে। তাহলে আমি কেন এনপিআর করব?”

 

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top