আজ বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১:৩৮ অপরাহ্

শিরোনাম

নাটোর প্রতিনিধি :

নাটোরের সিংড়া উপজেলা শহরের পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন, আধুনিকীকরণ ও গতিশীলতা বাড়াতে সিংড়া পৌরসভায় ১০টি পরিবেশবান্ধব ই-রিকশা ‘চলো’ পরিবহন ও দুটি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের উদ্বোধন করা হয়। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পৌরসভা প্রাঙ্গণে এই ব্যতিক্রমধর্মী পরিবহনের উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, টুমি জিআইজেডের কনসালটেন্ট মাইকেল ফিংক, টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার সাবাহ শামসী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) আকরামুল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সিংড়া সার্কেল) জামিল আক্তার প্রমুখ।

সিংড়া পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সিংড়া পৌর শহরে চালু করা হয়েছে ব্যতিক্রমধর্মী ‘চলো’ পরিবহন। পৌরসভা পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস টুমি গ্লোবাল আরবান মোবিলিটি চ্যালেঞ্জ ২০১৮-তে মোট ১৩০টি শহর তাদের প্রস্তাবনা দাখিল করে। যার মধ্যে বাংলাদেশে একমাত্র সিংড়া পৌরসভার এই প্রকল্পটি অনুমোদন লাভ করে এবং তৃতীয় স্থান লাভ করে।

সিংড়া শহরকে দূষণমুক্ত ও পৌরবাসীর জরুরি স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতে দুটি অ্যাম্বুলেন্স সেবার পাশাপাশি ১০টি পরিবেশবান্ধব ই-রিকশা ‘চলো’ পরিবহন প্রদান করেছে জার্মানির জিআইজেড প্রকল্প। চলো পরিবহন দুটিতে আটজন যাত্রী, চারটিতে চারজন যাত্রী ও চারটিতে তিনজন যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স দুটিতে রোগীসহ তিনজন যাত্রী যাতায়াত সুবিধা পাবেন। আর পৌরসভার হটলাইনে ফোন করলেই দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা বিভিন্ন নাগরিক সেবা প্রদান করবে এই চলো পরিবহন।

সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, শহরের রাস্তায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এই সেবা কার্যক্রম চালু করা হচ্ছে। এতে সাধারণ মানুষ আধুনিকতার ছোঁয়া পাবে এবং কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে। এছাড়াও মুজিববর্ষ উপলক্ষে পৌরসভার কল সেন্টারে ফোন দিলেই এক বছর ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সেবা পাবেন রোগীরা।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top