আজ বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট :

ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের হার কমানোসহ শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক ভূমিকা রাখছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এই সরকার প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করছে। প্রাথমিক থেকে স্নাতক পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দিয়ে যাচ্ছে।

রোববার (২৪ নভেম্বর) বেলা আড়াইটার দিকে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. মোমেন বলেন, সরকার তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসাবে দেশকে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি শিক্ষার্থীদের প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে উন্নত জাতি গঠনে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সিলেট জেলা পরিষদ।

বৃত্তিপ্রাপ্তদের ৯৭ শতাংশই মেয়ে হওয়ায় আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, একজন নারী শিক্ষিত হলে পুরো পরিবার তথা একটি জাতিকে শিক্ষিত করে তুলতে পারে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একজন পুরুষ কেবল নিজে শিক্ষিত হন। আর একজন নারী শিক্ষিত হলে শুধু পরিবার নয়, একটি দেশও শিক্ষিত করতে পারেন। এর যথেষ্ট উদাহরণও রয়েছে। এজন্য শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবছর প্রায় দু’কোটি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়ার উদ্যোগ নেন। যাতে আরও ভালো পড়ালেখা করার অন্বেষা জাগে।

অনুষ্ঠানে ২১৮ জন ছাত্রছাত্রীর মধ্যে ১৫ লাখ সাত হাজার ৫শ টাকা বৃত্তি দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিলেট জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ।

আরও বক্তব্য রাখেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিত সিংহ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও সীমান্তিকের চেয়ারম্যান ড. আহমদ আল কবীর প্রমুখ।

এ অনুষ্ঠানের পর বিকেলে সিলেট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ড. মোমেন। এয়ারপোর্ট গেট সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য, নগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মফিজুর রহমান বাদশা, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন চেয়ারম্যান প্রমুখ।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top