আজ সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান বলেছেন, সাংবাদিক সাগর-রুনির হত্যার বিচার হয়নি, তনু হত্যার বিচার হয়নি। আজকে আবরার হত্যার কী হবে জানি না। একের পর এক হত্যা চলছে, কিন্তু কোন বিচার হচ্ছে না। বিচার বলতে কিছু নেই। অর্থাৎ বিচারব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস। আমাদের নেতাকর্মীরা আদালতের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়ায়।

আর তাদের মুখে শুধু উন্নয়নের কথা। তারা বাংলাদেশকে রোল মডেল হিসেবে দেখে, বিশ্বের কাছ থেকে অ্যাওয়ার্ড নিয়ে আসে। বাংলাদেশের জনগণ এ সমস্ত অ্যাওয়ার্ড চায় না। বাংলাদেশ চায় স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব।

রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের মওলানা আকরাম খাঁ হলে শনিবার আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ সভার আয়োজন করে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম। সভায় সভাপতিত্ব করেন ফোরামের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলাম। বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিমউদ্দিন আলম, আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, ওলামা দলের আহ্বায়ক প্রিন্সিপাল শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলম।

সেলিমা রহমান আরও বলেন, বর্তমান সরকার তাদের অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য বাংলাদেশে এমন কোনও অপকর্ম নাই যা করেনি, করছে না। আপনারা লক্ষ্য করে দেখবেন, এক এক করে যদি আমরা এই সরকারের ১০ বছরের ইতিহাস তুলে ধরি, শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারি থেকে, ব্যাংক লুট থেকে শুরু করে, দুর্নীতি, নারী হত্যা, নারী ধর্ষণ, শিশু হত্যা থেকে শুরু করে সমগ্র বাংলাদেশকে একটি অন্ধকারের দিকে ক্রমশ ধাবিত করে নিয়ে যাচ্ছে ক্ষমতালিপ্সু সরকার। ক্যাসিনো-কাণ্ডের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, চুনোপুঁটি ধরতে গিয়ে সরকার এখন জনতার আদালতে পৌঁছে গেছে। কারণ সাধারণ মানুষ জানে- সরকারের উচ্চ পর্যায়ের লোকদের ধরা হচ্ছে না। তারা এসব চুনোপুঁটিদের ধরে বিএনপিকে আক্রমণ করার আরেকটি নতুন ইস্যু খুঁজছে।

সেলিমা রহমান প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, জিয়ার সৈনিকের ডাকে অবশ্যই মানুষ রাজপথে নামবে এবং আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনবে ইনশাআল্লহ।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top