আজ সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

প্রথম ইনিংসে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের করা ৪৩২ রানের জবাবে বাংলাদেশের দুই ইনিংস থামলো ২১১ ও ২০৯ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে মাহমুদুল্লাহর ৬৭ এবং মিঠুনের ৪৭ সত্ত্বেও ইনিংস পরাজয় এড়াতে পারেনি বাংলাদেশ।

বৃষ্টিতে প্রথম দু’দিন ভেসে গিয়েছিল। খেলা হলো শেষ তিন দিন। তাও বৃষ্টি বাগড়ায় একদিন ৩০ ওভারের মত খেলা হয়নি। ওয়েলিংটনে মঙ্গলবার ম্যাচের পঞ্চম দিনে প্রথম সেশনেই দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে নেয় বাংলাদেশ। তাই ইনিংস ও ১২ রানে হেরেছে তারা। তিন ম্যাচ সিরিজে নিউজিল্যান্ড তাই এগিয়ে গেছে ২-০ তে।

ম্যাচে বাংলাদেশ আগের দিনের তিন উইকেটে ৮০ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমে নিল ওয়েগনার ও ট্রেন্ট বোল্টের বিধ্বংসী বোলিং আক্রমণের সামনে ২০৯ রানেই ইনিংস গুটিয়ে নেয়।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর হাফ সেঞ্চুরি (৬৭), মোহাম্মদ মিঠুন (৪৭), সাদমান ইসলাম (২৯) ও সৌম্য সরকার (২৮) ছোট কয়েকটি ইনিংস খেললেও দলের হার এড়ানোর জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। তাই আবারও ইনিংস হারের লজ্জা পেতে হয়েছে তাদের।

এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ মাত্র ২১১ রান গড়েছিল। জবাবে ৪৩২ রান নিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে নিউজিল্যান্ড। রস টেইলর, হেনরি নিকোলাস ও কেন উইলিয়ামসনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়েই এই বিশাল সংগ্রহ গড়েছিল স্বাগতিকরা। টেইলর ব্যক্তিগত তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করে দলকে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখিয়েছেন। মুস্তাফিজের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে খেলেন ২০০ রানের চমৎকার একটি ইনিংস। আর উইলিয়ামসন ১০৫ বলে ৭৪ করে আউট হয়েছেন। নিকোলাস ১২৯ বলে ১০৭ রান করেন।

অবশ্য ম্যাচে দারুণ শুরু করেছিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাদমান ইসলাম। দুজনে ৭৫ রানের জুটি গড়েন। দ্বিতীয় উইকেটেও ভালো করেছিলেন তামিম ও মুমিনুল। এর পরই যে ধস শুরু হয়, তা আর কেউ থামাতে পারেনি।

অবশ্য তামিম এদিনও ভালো খেলেছেন। তিনি ১১৪ বলে ৭৪ রানের চমৎকার একটি ইনিংস খেলেন। পরে সাদমান ২৭ ও লিটন দাসের ৩৩ রান ছাড়া অন্যরা ছিলেন আসা-যাওয়ার দলে।

নিল ওয়েগনার ও ট্রেন্ট বোল্টের বোলিং তোপেই বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের বেহাল অবস্থা হয়েছে। ওয়েগনার ১৩ ওভারে মাত্র ২৮ রান দিয়ে চার উইকেট তুলে নেন। আর বোল্ট ১১ ওভারে ৩৮ রানে তিন উইকেট পান।

0Shares

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top