যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি হবে ম্যাক প্রো

ডেস্ক নিউজ :

মার্কিন প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের বেশির ভাগ প্রযুক্তিপণ্যের নকশা করা হয় যুক্তরাষ্ট্রে। তবে বেশির ভাগ পণ্য উৎপাদিত হয় চীনে। ব্যতিক্রম হিসেবে পরবর্তী ডেস্কটপ কম্পিউটার ম্যাক প্রোর নকশা থেকে শুরু করে তৈরি পর্যন্ত পুরো প্রক্রিয়া যুক্তরাষ্ট্রেই করা হবে বলে অ্যাপলের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের অস্টিনের কারখানায় ম্যাক প্রো উৎপাদনের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে বাজারজাতের কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে অ্যাপল। এ ছাড়া কারখানার কাছেই নতুন একটি কার্যালয় গড়ে তোলার কাজও চলছে।

প্রায় ১০০ কোটি ডলার ব্যয়ে তৈরি হবে ৩০ লাখ বর্গফুটের এই কার্যালয়। আগামী বছরের শেষ নাগাদ নির্মাণকাজ শেষ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এখানে শুরুতে পাঁচ হাজার কর্মী নিয়োগ করে সংখ্যাটা ধীরে ধীরে বাড়াবে অ্যাপল।

অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিম কুক এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘অ্যাপলের সবচেয়ে শক্তিশালী যন্ত্র ম্যাক প্রো অস্টিনে উৎপাদন করা একদিকে গর্বের, অন্যদিকে উদ্ভাবনী দক্ষতার প্রমাণ। আমাদের নির্মাণাধীন কার্যালয়ের মাধ্যমে এই শহর এবং মেধাবী ও বৈচিত্র্যময় কর্মীদের সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করছে।’

ম্যাক প্রোর সর্বশেষ সংস্করণটি বাজারে আসে ২০১৩ সালে। আর নতুন ম্যাক প্রো বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেওয়া হয় চলতি বছরের জুনে অনুষ্ঠিত অ্যাপলের সফটওয়্যার নির্মাতাদের সম্মেলনে। নতুন নকশার কারণে বদলে যাবে ম্যাক প্রোর আগের সিলিন্ডার আকৃতি। সর্বোচ্চ স্পেসিফিকেশনে এই কম্পিউটারে থাকবে ২৮ কোরের এক্সিওন প্রসেসর ও ১.৫ টেরাবাইট র‌্যাম। দাম শুরু হয়েছে প্রায় ৬ হাজার ডলার থেকে। সূত্র: ম্যাশেবল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *