শিরোনাম

আজ রবিবার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ০৩:০৬ অপরাহ্

নিজস্ব প্রতিবেদক  :

পচা কোম্পানি বা ‘জেড’ গ্রুপের দুই প্রতিষ্ঠান ইমাম বাটন ও বিচ হ্যাচারিসহ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত তিনটি কোম্পানির শেয়ার কিনতে পারছেন না বিনিয়োগকারীরা। অপর কোম্পানিটি হচ্ছে প্রগতী লাইফ ইন্স্যুরেন্স।

যেসব বিনিয়োগকারীর কাছে এই প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ার আছে তাদের কেউ শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হচ্ছেন না। ফলে ক্রেতা থাকলেও শেয়ারের বিক্রেতা শূন্য হয়ে পড়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ‘জেড’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান ইমাম বাটনের শেয়ার লেনদেন শুরুর দাম ছিল ১৯ টাকা ৭০ পয়সা দরে। এর থেকে ১ টাকা ৬০ পয়সা কমিয়ে ১৮ টাকা ১০ পয়সা দরে প্রথমে ৫০০ শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পড়ে। তবে কেউ এই দামে শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি।

এরপর কয়েক দফা বেড়ে এক পর্যায়ে ২১ টাকায় ১৫ হাজার ৮২৪টি শেয়ার ক্রয়ের আবেদন আসে। এ দামেও কেউ শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি। ফলে লেনদেন প্রথম ঘণ্টায় শেয়ার দাম বেড়ে সার্কিট বেকারের (দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা) কাছে চলে আসে। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ারের বিক্রেতা শূন্যই থেকে গেছে।

‘জেড’ গ্রুপের আরেক প্রতিষ্ঠান বিচ হ্যাচারির শেয়ার লেনদেন শুরুর দাম ছিল ১২ টাকা ৫০ পয়সা দরে। এর থেকে ২০ পয়সা কমিয়ে ১২ টাকা ৩০ পয়সা দরে প্রথমে ১০৫ শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পড়ে। তবে কেউ এ দামে শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি।

এরপর কয়েক দফা বেড়ে একপর্যায়ে ১৩ টাকা ৩০ পয়সা করে ৪৯ হাজার ৩২৬টি শেয়ার ক্রয়ের আবেদন আসে। এ দামেও কেউ শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি। ফলে লেনদেন প্রথম ঘণ্টায় শেয়ার দাম বেড়ে সার্কিট বেকারের (দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা) কাছে চলে আসে। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ারের বিক্রেতা শূন্যই থেকে গেছে।

বিক্রেতা শূন্য হয়ে পড়া আরেক কোম্পানি প্রগতী লাইফের শেয়ার লেনদেন শুরুর দাম ছিল ১২১ টাকা ৫০ পয়সা দরে। এর থেকে ৫ টাকা ৯০ পয়সা বাড়িয়ে ১২৭ টাকা ৪০ পয়সা দরে প্রথমে ১০০ শেয়ার ক্রয়ের আবেদন পড়ে। তবে কেউ এ দামে শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি।

এরপর কয়েক দফা বেড়ে একপর্যায়ে ১৩০ টাকা ৭০ পয়সা করে ১৭ হাজার ৪১৬টি শেয়ার ক্রয়ের আবেদন আসে। এ দামেও কেউ শেয়ার বিক্রি করতে রাজি হননি। ফলে লেনদেন প্রথম ঘণ্টায় শেয়ার দাম বেড়ে সার্কিট বেকারের (দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা) কাছে চলে আসে। এরপরও কোম্পানিটির শেয়ারের বিক্রেতা শূন্যই থেকে গেছে।

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top