শিরোনাম
  গোলাপি বলে মানিয়ে নিতে মিরাজদের কঠোর পরিশ্রম       অনুদানের চলচ্চিত্র ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’র যাত্রা হলো শুরু       বাঘ উদ্ধারের গল্প       তারেক রহমান ডিজিটাল দেশ গড়ার কাজ শুরু করেন : ফখরুল       শোভন-রাব্বানী ও ৫ এমপিসহ ১০৫ জনের সম্পদের অনুসন্ধানে দুদক       বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী : ৫৪ স্থানে বসছে ক্ষণ গণনার ডিসপ্লে       লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশি নিহত, আহত ১৫       পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৭০ টাকা       চট্টগ্রামে’র নগরীর হালিশহর এইচ ব্লকে নর্দমার পাশ থেকে নবজাতক উদ্ধার       অনিয়ম-দূর্নীতির আখড়া, সেবাপ্রার্থীদের দূর্ভোগ : বিআরটিএ অফিসে জেলা প্রশাসকের ঝটিকা অভিযান,  ২ দালালকে কারাদন্ড    

আজ মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২০ অপরাহ্

 নিজস্ব প্রতিবেদক :
বাংলাদেশে অবৈধভাবে বসবাসকারী ১১ হাজার বিদেশিকে সরকার ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে।বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অবৈধ বিদেশিদের ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মোজাম্মেল হক জানান, এসব নাগরিকদের ভিসার মেয়াদ শেষ হলেও তারা নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার কোনো উদ্যোগ নেননি। কিছু দেশের দূতাবাসও বাংলাদেশে নেই। তাই তাদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া জটিল হয়ে পড়েছিল। তা ছাড়া, এসব নাগরিকদের সঙ্গে কোনো অর্থ নেই। তাদের ফেরত পাঠানোর জন্য সরকারের কাছে অর্থ বরাদ্দের জন্য সুপারিশ করেছে কমিটি।

অবৈধ বিদেশিদের চিহ্নিত করতে দেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো অত্যন্ত সফলতার সঙ্গে কাজ করেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন সময়ে আফ্রিকাসহ নানা দেশের নাগরিক ভিসা নিয়ে বৈধভাবে বাংলাদেশে এসেছেন। এমন ১১ হাজার নাগরিকের তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যাদের ভিসা এবং পাসপোর্ট কোনোটিরই মেয়াদ নেই। এদের কিছু সংখ্যক অপরাধে জড়িয়ে কারাগারে বন্দী রয়েছেন। আবার কিছু সংখ্যক অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাদের আবার কেউ কেউ অপরাধে জড়িয়ে পড়ছেন।

পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হলেও তারা কখনো নিজ দেশে যাওয়ার চেষ্টা করেননি উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান বলেন, ‘কিছু দেশের দূতাবাস এখানে রয়েছে, সেখানে সরকারের পক্ষ থেকে তাদের নাগরিকদের বিষয়ে যোগাযোগ করা হলেও সাড়া পাওয়া যায়নি। তাই সরকার নিজ উদ্যোগে তাদের নিজ দেশে পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে।’

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top