শিরোনাম
  গোলাপি বলে মানিয়ে নিতে মিরাজদের কঠোর পরিশ্রম       অনুদানের চলচ্চিত্র ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’র যাত্রা হলো শুরু       বাঘ উদ্ধারের গল্প       তারেক রহমান ডিজিটাল দেশ গড়ার কাজ শুরু করেন : ফখরুল       শোভন-রাব্বানী ও ৫ এমপিসহ ১০৫ জনের সম্পদের অনুসন্ধানে দুদক       বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী : ৫৪ স্থানে বসছে ক্ষণ গণনার ডিসপ্লে       লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশি নিহত, আহত ১৫       পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৭০ টাকা       চট্টগ্রামে’র নগরীর হালিশহর এইচ ব্লকে নর্দমার পাশ থেকে নবজাতক উদ্ধার       অনিয়ম-দূর্নীতির আখড়া, সেবাপ্রার্থীদের দূর্ভোগ : বিআরটিএ অফিসে জেলা প্রশাসকের ঝটিকা অভিযান,  ২ দালালকে কারাদন্ড    

আজ মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:৩৬ অপরাহ্

ফেসবুক লাইভ স্ট্রিমিং করে আলোচিত সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন গৌতম কুমার নামে রাজধানীর ভাষানটেকের এক ব্যক্তি।

গৌতম কুমারকে আইনি সহায়তা দেন হিন্দু আইনজীবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুমন কুমার রায়। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী সঞ্চয় কুমার দে দুর্জয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত ১৯ জুলাই ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন ফেসবুকে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের নিয়ে কটূক্তি করেন। তার ‘আপত্তিকর ও উস্কানিমূলক’ বক্তব্য হিন্দু সমাজের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে যার কারণে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে ব্যারিস্টার সুমন আগে থেকেই বলে আসছেন তার নামে চালানো ওই ফেসবুক আইডিটি ভুয়া। তিনি গত ২০ জুলাই তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে লিখেন, “আমার নাম ব্যবহার করে একটি ফেইক পেজ হিন্দু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বিষোদ্‌গার করছে। আমি এ বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। আপনারা সচেতন থাকবেন। এটাই আমার একমাত্র পেজ যার ফলোয়ার ২০ লাখের অধিক।”

মামলা দায়েরের বিষয়ে সুমন কুমার রায় বলেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে আদালত কোনো আদেশ দেননি।

এর আগে সুমন কুমার রায় নিজের ফেসবুক আইডিতে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে মামলা দায়েরের ঘোষণা দিয়ে জানান, পৃথক দুটি ধারায় ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

হিন্দু আইনজীবী পরিষদের সভাপতি বলেন, “ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে একটি এবং মানহানির অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুটি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।”

তিনি বলেন, “ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে দুই ধরনের অভিযোগ আনার সুযোগ আছে। একটি ২৯৫ (ক) ধারায়। অপরটি ফেসবুক লাইভে মানহানি করায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধিত ধারায় অভিযোগ আনা হবে।”

তখন এ বিষয়ে ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বলেন, “মামলা করা একটি সাংবিধানিক অধিকার। যে কেউ কারও বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে। এটাই বাংলাদেশের নিয়ম হওয়া উচিত।”

এর আগে সংখ্যালঘু হিন্দুদের নিপীড়ন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা করেন ব্যারিস্টার সুমন। যদিও আদালত মামলাটি খারিজ করে দিয়েছে।

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top