আজ শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৯ অপরাহ্

বিশেষ সংবাদদাতা :

তার অনেক পরে এসে জাতীয় দলে জায়গা পোক্ত করে নিয়েছেন সৌম্য সরকার ও লিটন দাস। হালে ২০ বছরের তরুণ নাইম শেখও ঢুকে পড়েছেন টি-টোয়েন্টি দলে। কিন্তু যতই দিন যাচ্ছে ততই পিছিয়ে পড়ছেন অনেক সম্ভাবনা নিয়ে আসা এনামুল হক বিজয়।

তার আদৌ আর জাতীয় দলে ঢোকা সম্ভব হবে কিনা, সীমিত ওভারের ফরমেটে বিজয় আদৌ নিজেকে আর ধরে রাখতে পারবেন কি না? সে প্রশ্নই এখন সবার।

এবারের বিপিএল সে প্রশ্ন নিয়েই এসেছে বিজয়ের সামনে। বিজয় কি নিজেকে মেলে ধরতে পারবেন? তামিম ইকবালের মতো দেশসেরা ওপেনার যখন সঙ্গী, তখন খানিকটা মানসিক চাপমুক্ত হয়েই এবার ঢাকা প্লাটুনে খেলার সুযোগ থাকবে তার সামনে।

গত বিপিএলের ফাইনালে অতিমানবীয় ইনিংস খেলা তামিমকে সঙ্গী হিসেবে পেয়ে কি আসলেই বিজয় জ্বলে ওঠতে পারবেন। জাতীয় দল থেকে ছিটকে পড়া এই ওপেনারের আশা, তিনি পারবেন।

বিপিএল শুরুর আগে মিরপুরের একাডেমি মাঠে অনানুষ্ঠানিক প্র্যাকটিসের পর উপস্থিত সাংবাদিকদের এমন আশার বাণীই শুনিয়েছেন বিজয়। বিশেষ করে জাতীয় দলে টি-টোয়েন্টি ফরমেটে যেন অন্ততপক্ষে ফিরতে পারেন, সেজন্য স্ট্রাইকরেটের দিকে নজর রেখে খেলার পরিকল্পনা ডানহাতি এই ওপেনারের।

বিপিএলের এবারের আসর কিছুটা পরিবর্তিত চেহারায়। এ নিয়ে বিজয় বলেন, ‘আসলে আমার কাছে মনে হয় এক্সাইটমেন্টটা একই রকম থাকবে। বিপিএল মানেই আলাদা এক উত্তেজনা দেশের জন্য প্রতিটা ক্রিকেট ভক্তের জন্য। আমার কাছে মনে হয় তারা খেলা দেখতে আসে খেলা উপভোগ করতে আসে। মনে হয় এটার কোন পরিবর্তন হবে না। আমরা যারা প্লেয়ার আছি, তারা খুব এক্সাইটেড। আমাদের সাথে সাথে যারা দর্শক আছে যারা ক্রিকেট পছন্দ করে সবারই এক্সাইটমেন্ট থাকবে।’

ঢাকা প্লাটুন এবার শক্তিশালী এক দল গড়েছে। দেশি দুই বড় তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা আর তামিম ইকবাল একই দলে। বিদেশিদের মধ্যে আচেণ শহীদ আফ্রিদি, থিসারা পেরেরা, ওয়াহাব রিয়াজের মতো বড় নাম।

নিজেদের দল নিয়ে বিজয় বলেন, ‘আসলে আমাদের ঢাকা প্লাটুনের অসম্ভব দারুণ একটা টিম হয়েছে। দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল আছেন, টেস্ট ক্যাপ্টেন মুমিনুল আছেন। মাশরাফি বিন মর্তুজার মতো এতো বড় একজন লিডার আছেন। সালাউদ্দিন স্যারের মতো কোচ আছেন। আফ্রিদি-থিসারা পেরেরা-ওয়াহাব রিয়াজ আছেন। আমার মনে হয়, আমাদের কাছে ভালো একটা দল আছে। ঢাকা ঢাকার মতোই টিম হয়েছে।’

বিপিএল দিয়ে আবারও জাতীয় দলে জায়গা করে নেয়ার স্বপ্ন বিজয়ের। ব্যক্তিগত লক্ষ্য নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমারও ব্যক্তিগতভাবে অনেক পরিকল্পনা রয়েছে দলের জয়ে কিভাবে ভূমিকা রাখবো। এই বিপিএল দিয়েই কিন্তু জাতীয় দলে জায়গা করে নিয়েছিলাম, আবারও সেই চেষ্টা করবো। যাতে এই বিপিএল দিয়ে পারফর্ম করে জাতীয় দলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য তৈরি হতে পারি।’

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top