আজ শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:১৩ অপরাহ্

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

শ্রীলঙ্কার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে প্রথম রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে এসে দেশের জন্য বিশাল আর্থিক সহায়তা নিয়ে গেছেন। দ্বীপরাষ্ট্রটিতে চীনের আধিপত্য কমিয়ে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারে মোদি সরকার দেশটিকে প্রায় অর্ধশত কোটি ডলার আর্থিক সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

তিনদিনের ভারত সফরে গত বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লি আসেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজপাকসে। পরদিন শুক্রবার শ্রীলঙ্কার অবকাঠামো ও নিরাপত্তা খাতের উন্নয়নে আর্থিক সহায়তা দেয়ার কথা জানায় ভারত। তার এই সফরের ওপর গভীর নজর রাখছে শ্রীলঙ্কায় রাজপাকসে পরিবারের ঘনিষ্ঠ হিবেবে পরিচিত চীন।

ভারত মহাসাগর পাড়ের দেশ শ্রীলঙ্কা এশিয়া অঞ্চলের জন্য কৌশলগত একটি স্থান। বিশেষ করে দেশটির সমুদ্র পথের কারণে এই অঞ্চলের ‘হুজুর রাষ্ট্র’ চীন ও ভারত উভয়ে সেখানে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার প্রতিযোগিতায় লিপ্ত। ভারত গোতাবায়াকে চীনের প্রভাবকে কাটিয়ে উঠতে এই সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ভারত শ্রীলঙ্কার মিত্র হলেও কিন্তু গোটাবায়া রাজাপাকসের বড়ভাই ও দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসের দশকব্যাপী শাসনের সময়ে দ্বীপরাষ্ট্রটিতে ব্যাপক বিনিয়োগ ও শত শত কোটি ডলার ঋণের ফাঁদে ফেলেছে চীন। বিপুল বিনিয়োগের মাধ্যমে চীনের প্রভাব কমাতে চাইছে ভারত।

গোতাবায়ার সঙ্গে বৈঠক শেষে অর্থনীতি এবং অবকাঠামো উন্নয়নে শ্রীলঙ্কাকে ৪০ কোটি এবং নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা ব্যবস্থাকে সমৃদ্ধ করতে আরও ৫ কোটি ডলার ঋণ দেয়ার দেয়ার প্রস্তাব করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। মোদি বলেছেন, শক্তিশালী ও সমৃদ্ধ শ্রীলঙ্কা শুধু ভারতের স্বার্থেই নয় পুরো ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top