শিরোনাম

আজ রবিবার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ০৩:২৮ অপরাহ্

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত বিভিন্ন দেশ। ভারতেও হানা দিয়েছে করোনা। ইতোমধ্যে মারা গেছেন দুই জন। এদিকে, দোসর হল বৃষ্টি

যে সে বৃষ্টি নয়, একেবারে হলুদ রঙের বৃষ্টি! হ্যাঁ, ঠিকই হলুদ বৃষ্টি!

এমনই বৃষ্টির সাক্ষী রইল ভারতের বীরভূমের মুরারই। আর শুক্রবার হওয়া সেই বৃষ্টিতেই শোরগোল পড়ে যায় মুরারই থানার রাজগ্রামের সন্তোষপুর এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা ছিল ওই এলাকায়।

দুপুরের পরই হঠাৎ করে শুরু হয় বৃষ্টি। আর সেই বৃষ্টির রঙ কিনা হলুদ। কাপড়, গাছের পাতা যেখানেই সেই বৃষ্টি পড়তে শুরু করে, সেই জায়গাটিই হলুদ হয়ে যেতে শুরু করে। হঠাৎই এমন বৃষ্টিতে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে স্থানীয় মানুষ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, এলাকাটি শিল্পাঞ্চল হওয়ায় গ্রামে পাথরের গুঁড়ো উড়ে আসে মাঝেমধ্যেই।

কিন্তু হলুদ বৃষ্টি! মনে করতে পারছেন না কেউ। তবে কেন ঘটল এমন আজব ঘটনা?

গবেষকদের অনুমান, এলাকাটি শিল্পাঞ্চল হওয়ায় বাতাসে ব্যাপক দূষণ রয়েছে। তার জেরেই এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। প্রাথমিকভাবে তারা বলছেন অ্যাসিড মিশ্রিত থাকায় বৃষ্টির পানির রং হলুদ হয়ে থাকতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের কথায়, বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইডের পরিমাণ বেড়ে গেলে জলীয় বাষ্পের সঙ্গে বিক্রিয়ায় সালফিউরিক অ্যাসিড তৈরি হয়। পানির সঙ্গে ওই অ্যাসিড মিশে বৃষ্টির মাধ্যমে নেমে এলে তাকে অ্যাসিড বৃষ্টি বলা হয়। অ্যাসিড বৃষ্টিতে ফসল, গাছপালার ক্ষতি হয়। ওই বৃষ্টির পানি মানুষের গায়ে লাগলে চামড়া পুড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও থাকে। সূত্র: এইসময়।

 
 
 

আরও পড়ুন

 

Top