আজ বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৪৮ অপরাহ্

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে একটি দুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে সিলগালা করে দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে ওই প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা এবং ১০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, স্কিম পাউডার, লবণ, সোডিয়াম, পানি ও বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্যের সংমিশ্রণে নকল তরল দুধ এবং দই উৎপাদন করছিল প্রতিষ্ঠানটি। সেই পণ্য তারা ‘ডেইরি ফ্রেশ’ ব্র্যান্ডে বাজারজাত করত।

বুধবার বেলা ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার পুরিন্দা বাজারের ‘বারো আউলিয়া ডেইরী মিল্ক অ্যান্ড ফুড লিমিটেড’ নামে প্রতিষ্ঠানে এই অভিযান চালায় র‌্যাব। সংস্থাটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম এতে নেতৃত্ব দেন। সহযোগিতায় ছিলেন র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী।

এসময় আটক করা হয় প্রতিষ্ঠানের এমডি আবুল কালাম আজাদ, জিএম আমিনুল ইসলাম, ডিজিএম আব্দুল আজিজ, শ্রমিক সফর আলী, নয়ন, আরিফুল ইসলাম, আবুল কালাম, হায়দার আলী, আতিক মিয়া ও রিফাদ আহমেদ।

জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে দেখা যায়, স্কিম পাউডার, লবণ, সোডিয়াম, পানি ও বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্যের সংমিশ্রণে নকল তরল দুধ এবং তরল দুধের সঙ্গে বিভিন্ন রাসায়নিক দ্রব্য মিশিয়ে ভেজাল দুধ ও দই উৎপাদন করে ‘ডেইরি ফ্রেশ’ ব্যান্ডে বাজারজাত করা হচ্ছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, এই অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা এবং ১০ জনকে আটক করা হয়। পরবর্তী সময়ে তাদের মধ্যে ছয়জনকে দুই বছর করে এবং চারজনকে ছয় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করার আদেশ দেন ম্যাজিস্ট্রেট।

প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আক্কাস আলী ও এমডি আসগর আহমেদ পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানায় র‌্যাব।

১৪টি কোম্পানির পাস্তুরিত দুধের বিষয়ে তিনটি সংস্থার প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে হাইকোর্ট ২৮ জুলাই স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ আদেশ দেয়। সেখানে ১৪টি কোম্পানির পাস্তুরিত দুধ উৎপাদন ও বিপণন পাঁচ সপ্তাহের জন্য বিরত রাখতে বলে। ওই ১৪টি কোম্পানির মধ্যে একটি ‘বারো আউলিয়া ডেইরী মিল্ক অ্যান্ড ফুডস লিমিটেডের ডেইরি ফ্রেশ’।

জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, হাইকোর্টের ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে প্রতিষ্ঠানটি আদালতে আবেদন করলে আদালত পাঁচ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করে। যার কারণে প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদন ও বিপণন চালু রেখেছিল।

Share on Facebook Share on Twitter

আরও পড়ুন